রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক ১৯ জানুয়ারি

  • অনলাইন
  • বুধবার, ১৩ জানুয়ারী ২০২১ ০৭:৩৩:০০

গণহত্যা ও নির্যাতনের মুখে কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারকে নিয়ে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসছে চীন। বৈঠকটি আগামী ১৯ জানুয়ারি ঢাকায় তিন দেশের সচিব পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার রাজধানীর লালমাটিয়া হাউজিং সোসাইটি স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে সুরের ধারার আয়োজনে ‘পৌষ উৎসব-১৪২৭’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই তথ্য জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।


পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমার সফর করেছেন। সফর শেষে তিনি আমাদের ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের জন্য বলেছেন, আমরা বলেছি সমস্যা নাই বসেন। আগামী ১৯ জানুয়ারি তিন দেশের সচিব পর্যায়ে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।’

এবারের বৈঠক নিয়ে আশাবাদের কথা ব্যক্ত করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বৈঠকে প্রত্যাবাসন নিয়ে আলোচনা হবে। আমরা সবসময় আশাবাদী। আমাদের বিশ্বাস রোহিঙ্গারা তাদের দেশে ফিরে যাবে।’

অতীতে বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গারা তাদের ফিরে গেছে জানিয়ে মোমেন বলেন, ‘আমরা দেখেছি, আগেও মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে নিয়েছে। ১৯৭৮ ও ১৯৯২ সালে তারা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিয়েছে। এখন যারা বাংলাদেশে অবস্থান করছেন তাদেরও তারা ফেরত নেবে বলে আমরা প্রত্যাশা করছি। আমরা সব সময় আশাবাদীদের দলে। কারণ রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ দেশেতো ফেরত যেতেই হবে।’

চীনের আন্তরিকতার কারণে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু করা যায়নি বলে চীনের সমালোচনাও করেন মোমেন। তিনি বলেন, ‘মিয়ানমার আমাদের বলছে রোহিঙ্গাদের নিয়ে যাবে কিন্তু নেয় না।’

 পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতিতে আট লাখ ৩০ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা করেছি। এই তালিকার সব আমরা মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর সম্পন্ন করেছি। মিয়ানমার এখন পর্যন্ত ৪২ হাজার রোহিঙ্গার যাচাই-বাছাই করেছে। এরমধ্যে ওরা কতজনকে ওদের নাগরিক হিসিবে মেনে নিয়েছে এখন এটা আমি বলতে পারব না।’

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য