নুসরাতের বিয়ে নিয়ে কটাক্ষ করে যা বললেন শ্রীলেখা

  • অনলাইন
  • শনিবার, ১২ জুন ২০২১ ০৩:৪৩:০০

নিখিল জৈনকে বিয়ে করেননি নুসরাত জাহান। নিজেই এই তথ্য জানিয়েছেন কলকাতার নায়িকা। এরপর থেকেই চলছে হৈ চৈ। সমালোচনায় ভাসছেন বশিরহাটের এই সাংসদ অভিনেত্রী। অনেকেই তাকে মিথ্যেবাদী আখ্যা দিচ্ছেন।

বিজেপির এক নেতা সংসদে দাঁড়িয়ে নুসরাতের বিয়ে নিয়ে মিথ্যা বলার এক ভিডিও শেয়ার করেছেন টুইটারে। সে নিয়েও অনেক জল ঘোলা হয়েছে।

নুসরাতের বিয়ে কান্ডের সঙ্গে এবার জড়ালো কলকাতার আরেক বিতর্কিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রের নাম। তার একটি পোস্ট নেটাগরিকদের নজর কেড়েছে। অনেকে মনে করছেন সেখানে তিনি বিয়ে নিয়ে মিথ্যা বলা নুসরাতকেই কটাক্ষ করেছেন।

শ্রীলেখা মিত্র ফেসবুকে লিখেছিলেন, ‘বিজেপিতে আমি এতদিন যোগদান করিনি। বিজেপির সাথে লিভ-ইন এ ছিলাম। তাই বিজেপি ছাড়ার কোনো প্রশ্ন ওঠে না। ইতি মুকুল রায়’।

শুক্রবার বিজেপি ছেড়ে ‘ঘর ওয়াপসি’ হয়েছে মুকুল রায় ও শুভ্রাংশুর রায়ের। সেই প্রসঙ্গে পোস্ট দিলেও তাতে নুসরতকে খোঁটা দিতে ছাড়েননি শ্রীলেখা এমন দাবি করছেন অনেকেই।

আনন্দবাজার ডিজিটালের একটি লাইভে এসে সেই প্রশ্নের জবাবও দিলেন শ্রীলেখা। তিনি বলেন, ‘আমি সত্যি কথা বলেছি। আমি মনে করি, একজন জনপ্রতিনিধি যদি অসততার আশ্রয় নেন, তা হলে সেটা অনুচিত। সেই প্রসঙ্গে আমার পোস্ট। নুসরাতের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমি ভাবিত নই। কিন্তু এখন তাকে আমি কেবল এক জন অভিনেত্রী হিসেবে দেখতে পারছি না। তিনি এক জন সাংসদ বটে।’

একই সঙ্গে শ্রীলেখার মতে, যদি সব গুজব সত্যি হয়, তবে ‘বিয়ে’ ছেড়ে বেরিয়ে এসে অন্য এক মানুষকে ভালবেসে, তার সন্তানকে গর্ভে ধারণ করার ঘটনা প্রশংসনীয়।

শ্রীলেখা বললেন, ‘নুসরত এবং আমার জগৎ ভীষণ আলাদা। কখনো তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কোনো মন্তব্য আমি করব না। এটা আমার স্বভাব নয়। তাই এটা ট্রোলিং নয়। অসততার বিরুদ্ধে মুখ খোলা।’

শ্রীলেখার প্রশ্ন, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং সংসদের রেকর্ড অনুযায়ী তিনি নিখিল জৈনকে বিবাহ করেছেন। আবার এখন বলছেন, তিনি বিবাহিত নন। সে কথা আগে স্বীকার করেননি কেন?

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য