গোপালগঞ্জে ট্রেনের ধাক্কায় ৫ নির্মাণশ্রমিক নিহত

  • অনলাইন
  • শুক্রবার, ২২ জুলাই ২০২২ ১১:০৭:০০
  • কপি লিঙ্ক

গোপালগঞ্জে ট্রেনের ধাক্কায় পাঁচ নির্মাণশ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।  বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার মহেশপুর ইউনিয়নের কাঠামদরবোস্ত (কাগদী) রেল ক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস, কাশিয়ানী থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে।

দুর্ঘটনায় নিহতেরা হলেন—কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া  ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের বিজয় মৃধার ছেলে সুজন মৃধা (৩৫), নিরোদ দাসের ছেলে পরিতোষ দাস (৩০), রবিন বিশ্বাসের ছেলে অমৃত বিশ্বাস (৩৫), মহের বিশ্বাসের ছেলে হিরামন বিশ্বাস (৪৫) এবং পারুলিয়া গ্রামের মালেক সিকদারের ছেলে রাজ্জাক সিকদার (৪০)। 

দুর্ঘটনায় আহত দুজনকে কাশিয়ানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক আবুল কালাম আজাদ পাঁচ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে পার্শ্ববর্তী ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনের ঢালাই কাজ শেষে নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত কংক্রিট মিক্সচার মেশিনে চড়ে কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের দিকে যাওয়ার সময় কাঠামদরবোস্ত রেল ক্রসিং পৌঁছালে রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা গোপালগঞ্জ শহরতলীর গোবরাগামী টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস ট্রেনটি মিক্সচার মেশিনকে ধাক্কা দেয়। এতে ট্রেনের ধাক্কায় পাঁচ নির্মাণশ্রমিক ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আহত হন আরও দুজন।

কা‌শিয়ানীর উপ‌জেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মে‌হেদী হাসান ব‌লে‌ন, মিক্সচার মেশিনে ১৫ থেকে ১৬ জন শ্রমিক ছিলেন।‌ নিহতদের প‌রিবা‌রের দাফন কাফ‌নের জন‌্য ১০ হাজার টাকা ক‌রে সহায়তা দেওয়া হ‌য়ে‌ছে। আহত এক জন‌কে ফ‌রিদপুর মে‌ডি‌কে‌ল কলেজ হাসপাতালে পাঠা‌নো হ‌য়ে‌ছে।

প্রত‌্যক্ষদর্শী কাঠামদরবস্ত গ্রা‌মের শামচুল হক খা‌নের ছে‌লে ব‌্যবসায়ী হাসান খান জানান, ঘটনার সময় তি‌নি রেললাইনের পা‌শে দা‌ড়ি‌য়ে মোবাইল ফোন ব্যবহার করছি‌লেন। তখন তি‌নি প্রথম ট্রেনের আলো দে‌খে শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে কলাপাতা দি‌য়ে নে‌মে যাওয়ার জন‌্য সং‌কেত দেন। তখন মিক্সচার মেশিনের পেছন থে‌কে পাঁচ জন নে‌মে যান।

রাজবাড়ী রেলওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ আলম জানান, বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ৩টার দিকে পাঁচটি লাশই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য