খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস আজ, ৩০ বছরের পথচলা

  • অনলাইন
  • বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০ ১১:৪৪:০০

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জনগণের নিরলস প্রচেষ্টা ও দীর্ঘদিনের আন্দোলনের পর ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (খুবি)। প্রতিষ্ঠাকালের দিক থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে খুবির অবস্থান নবম। আজ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস।

সেশনজট, সন্ত্রাস ও রাজনীতিমুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে এ বিশ্ববিদ্যালয় তার শিক্ষা কার্যক্রমের ৩০ বছর পূর্ণ করল। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, ওয়েবিনারে আলোচনাসভা, আলোকসজ্জাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। ২০০২ সালের ২৫ নভেম্বর ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে পালিত হয় প্রথম খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস। এরই ধারাবাহিকতায় প্রতি বছর ২৫ নভেম্বর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

খুলনা মহানগরী থেকে তিন কিলোমিটার পশ্চিমে খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়ক সংলগ্ন ময়ূর নদের পাশে এক মনোরম পরিবেশে গল্লামারী এলাকায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় অবস্থিত। তবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও সংলগ্ন এলাকাটি ছিল ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়কার এক বধ্যভূমি।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় একটি সাধারণ বিশ্ববিদ্যালয়। তবে সময়ের চাহিদা অনুযায়ী এখানে বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তিবিদ্যা, চারুকলাসহ অন্য বিষয়ের প্রতিও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে বুয়েটের পরই ১৯৯৭-৯৮ শিক্ষাবর্ষ থেকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্স ক্রেডিট পদ্ধতি চালু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার পর থেকেই শিক্ষা সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে অগ্রসর হচ্ছে তার অভীষ্ট লক্ষ্যে।

বর্তমানে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে আটটি স্কুল (অনুষদ) রয়েছে। এখানে মোট ২৯টি ডিসিপ্লিনে (বিভাগ) শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নিয়মিত, ব্যাচেলর অব অনার্স ডিগ্রি, মাস্টার্স ডিগ্রি, এম ফিল এবং পিএইচডি প্রদান করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষ্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন, নিরবচ্ছিন্নভাবে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শিক্ষা কার্যক্রমের ৩০ বছর পূর্তি নিঃসন্দেহে দেশে উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বিশেষ অর্জন ও গৌরবের বিষয়। গত ১০ বছর বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত আনুকূল্যে প্রায় ৫০০ কোটি টাকার প্রকল্প বরাদ্দে বিভিন্ন উন্নয়ন অবকাঠামো বাস্তবায়নের ফলে বিশ্ববিদ্যালয় পূর্ণাঙ্গতার পথে রয়েছে। চলতি প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ২০২২-২৩ সালের মধ্যে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দেশের অন্যমত শ্রেষ্ঠ বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে পূর্ণাঙ্গরূপে পরিগ্রহ করবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য