ধর্ষণের পর হাতুড়ি, ছুরি দিয়ে ৮৪ জন নারীকে হত্যা

  • অনলাইন
  • মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই ২০২০ ১০:১৬:০০

একজন বা দুইজন নয়। ৮৪ জন নারীকে হত্যা করেছেন তিনি। কাউকে হাতুডি়র আঘাতে। কাউকে ছুরি দিয়ে। কাউকে আবার কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে। আবার কাউকে প্রাণে মেরেছেন শ্বাসরোধ করে। নৃশংস এই সিরিয়াল কিলারের নাম মিখাইল পোপকভ। 

রাশিয়ার সাবেক পুলিসকর্মী মিখাইল ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী নারীদের ধর্ষণ করে হত্যা করতেন। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতে রয়েছে তার হাড়হিম করে দেওয়া স্বীকারোক্তি। কেন, কবে, কীভাবে সেই নারীদের নৃশংসভাবে হত্যা করেছেন তার বর্ণনা সে নিজেই দিয়েছেন। 
  

১৯৯২ থেকে ২০১০ পর্যন্ত ৮৪ জন নারীকে হত্যা করেছে মিখাইল। আপাতত রাসশিয়ান পুলিশের হিসাব তাই বলছে। যদিও এই নৃশংস সিরিয়াল কিলার নিজে ৮১ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। 
  
মিখাইলের হত্যাকাণ্ডের তদন্তে নামা পুলিশ কর্মকর্তা এবচের্জেবস্কি সন্দেহ করছেন, এখনও পর্যন্ত মিখাইল অন্তত ২০০ জনকে হত্যা করেছে। মিখাইলকে জেরা করার পর পুলিশ আরও অনেক তথ্য পেয়েছে। তবে জেরার মুখেও মিখাইল মোট কতজনকে সে হত্যা করেছে তা জানাতে অস্বীকার করেছে। 
  
২০১৫ সালে মিখাইলের উপর ২২ জন নারীকে হত্যার অভিযোগ ছিল। কিন্তু পরে সে আরও ৫৯ জন নারীকে হত্যার কথা স্বীকার করে। এর মধ্যে একজন নারী পুলিসকর্মীও ছিলেন। তবে পুলিস তিনটি হত্যাকাণ্ডে মিখাইলের সম্পৃক্ততার এখনও কোনও প্রমাণ পায়নি। মিখাইলই কি তবে বিশ্বের সবচেয়ে নৃশংস সিরিয়াল কিলার? এমন প্রশ্নের উত্তরে অনেকেই বলছেন, হ্যাঁ। 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য