ফরিদপুরে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দুই ডাকাতদল আটক

  • আবু নাসের হুসাইন, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
  • সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:৫৪:০০

ফরিদপুরে পৃথক স্থানে ডাকাতী প্রস্তুতিকালে দুই ডাকাতদলকে আটক করেছে পুলিশ। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জেলা পুলিশ এ তথ্য জানিয়েছেন।

জেলা পুলিশ জানান, কোতয়ালী থানার এসআই মোঃ সেলিম মোল্যা সঙ্গীয় ফোর্সসহ শহরের আলীপুর অবস্থানকালে গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কোতয়ালী থানাধীন গুহলক্ষীপুর রেলষ্টেশন এর পূর্বপাশ কবতুরের হাট গোল চত্তরে কতিপয় অজ্ঞাত ব্যক্তিরা দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রসহ ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহনের জন্য সমবেত হয়েছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে  রবিবার (১২ সেপ্টেম্বার)  ভোর রাতে কোতয়ালী থানাধীন গুহলক্ষীপুর রেলষ্টেশন এর পূর্বপাশ কবতুরের হাট গোল চত্তরে মোঃ আলম মোল্যা ওরফে আলমগীর মোল্যা (৫০), পিং- মৃত: হাকিম মোল্যা, সাং- বাখুন্ডা পশ্চিমপাড়া, থানা- কোতয়ালী, ফিরোজ মোল্যা (৪০), পিং- সমশের মোল্যা, সাং- কোনাগ্রাম, থানা- নগরকান্দা ও শফি ফকির (৪৩), পিং- ছালাম ফকির, সাং- পূর্বকান্দি হাটকৃষ্ণপুর, থানা- সদরপুর, সর্বজেলা- ফরিদপুরকে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্রসহ ডাকাতির প্রস্তুতিকালে হাতেনাতে আটক  করেন। এসময় অন্যান্য আসামীরা পালিয়ে যায়।

ধৃত আসামীদের নিকট হতে ১টি ধারালো চাপাতি, ১টি ধারালো দা, ১টি লোহার রড, ৩ টি মোবাইল সেট এবং নগদ ২,৫৬০ টাকা উদ্ধার করে জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করেন।

আসামীগণ ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র সহ ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করিয়া বর্ণিত ঘটনাস্থলে সমবেত হয়। এ ঘটনায় এসআই মোঃ সেলিম মোল্লা বাদী হয়ে কোতয়ালী থানার মামলা রুজু করেন।

এসআই/ইব্রাহীম পাটোয়ারী সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ বোয়ালমারী থানা এলাকায় বিশেষ অভিযানের ডিউটি করাকালীন গত শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বোয়ালমারী থানাধীন বোয়ালমারী বাজারে অবস্থানকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন যে, বোয়ালমারী থানাধীন সেলাহাটি সাকিনস্থ জনৈক আরশাদ আলী, পিতা-মৃত মইদুর আলী এর আকাশী ও মেহেগুনি গাছের বাগানের মধ্যে ১০/১২ জনের একটি দল ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে গোপনভাবে শলাপরামর্শ করার জন্য সমবেত হয়েছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্সসহ রবিবার ভোর রাতে বোয়ালমারী থানাধীন শিলাহাটি সাকিনস্থ জনৈক আরশাদ আলী, পিতা-মৃত মইদুর আলী এর আকাশী ও মেহগনি গাছের বাগানের মধ্যে পৌঁছলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ১০/১২ জন লোক পালানোর চেষ্টাকালে আসামী সুমন (২৫), পিতা- রমজান আলী, আল আমিন (২২), পিতা-উজির আলী, সর্ব সাং-কান্দাকুল, থানা-বোয়ালমারী, জেলা-ফরিদপুরদের ধৃত করেন এবং অন্যান্য আসামী পালিয়ে যায়।

উল্লেখিত আসামীরা পলাতক আসামীরাসহ ডাকাতির উদ্দেশ্যে সমবেত হয়েছিল বলে স্বীকার করে। উপস্থিত সাক্ষীদের মোকাবেলায় আসামীদের দখল হতে ১ টি লোহার তৈরি রামদা ১ টি লোহার তৈরি চাপাতি ১ টি লোহার তৈরি রামদা এবং একটি সেলাই রেঞ্জ উদ্ধারকৃত আলামত হিসেবে জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করেন।

আসামীগণ ডাকাতি করার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র সহ ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করে বর্ণিত ঘটনাস্থলে সমবেত হয়। এ ঘটনায় এসআই ইব্রাহীম পাটোয়ারী বাদী হয়ে মামলা করেন যা, বোয়ালমারী থানায় মামলা রুজু হয়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য