মৌলভীবাজারে চলন্ত অটোরিকশায় তরুণীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ, চালক আটক

  • অনলাইন
  • বুধবার, ১২ মে ২০২১ ১২:০১:০০

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তিন যুবক এক তরুণীকে যৌন হয়রানির পর ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে অটোরিকশার চালককে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত সোমবার সন্ধ্যায় এক তরুণী কমলগঞ্জের আদমপুর বাজার থেকে ঈদের কেনাকাটা শেষে নিজ বাড়ি হোমেরজান এলাকায় ফেরার জন্য অটোরিকশায় উঠেন। অটোরিকশায় ছিলেন চালক কাওছার এবং তাঁর সহযোগী জায়েদ ও জালাল হোসেন। ঘোড়ামারা এলাকায় আসার পর জায়েদ ও জালাল হোসেন চলন্ত অটোরিকশার ভেতরে তরুণীকে যৌন হয়রানি করতে শুরু করে।

এ সময় তরুণী চিৎকার শুরু করলে তাঁকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দেয় জায়েদ ও জালাল হোসেন। পরে স্থানীয়রা তরুণীকে রাস্তার পাশে দেখতে পেয়ে পরিবারের সদস্যদের জানালে ঘটনাস্থল থেকে তাঁকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক সৌমিত্র দেব জানান, তরুণী মাথা, মুখ, হাতসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

তরুণীর বাবা জানান, সম্প্রতি তাঁর মেয়ের বিয়ে ঠিক হয়েছে। ঈদের পর মেয়ের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হওয়ার কথা রয়েছে। আদমপুর বাজারে তাঁর মেয়ে ও হবু জামাতাকে ঈদ উপলক্ষে কাপড় কিনে দেন তাঁরা। এ সময় মেয়ের শ্বশুর বাড়ির লোকজনও ছিল। পরে তাঁর মেয়ে আদমপুর বাজার থেকে অটোরিকশায় বাড়ি যাওয়ার পথে এই ঘটনা ঘটে।

কমলগঞ্জ থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মেয়ের বাবা বাদী হয়ে তিনজনকে অভিযুক্ত করে মামলা করেছেন। চালক কাওছারসহ অটোরিকশাটি মঙ্গলবার মধ্যরাতে আটক করা হয়েছে। অন্যদের ধরতে অভিযান চলছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য