আজ আবারো হিমছড়ি সৈকতে ভেসে এলো আরেকটি মৃত নীল তিমি

  • অনলাইন
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১ ০১:৪৩:০০

পরপর দু’দিন কক্সবাজর সৈকতে দুটি মৃত নীল তিমি ভেসে এলো। হিমছড়ি সৈকতে আজ আরও একটি মৃত তিমি ভেসে এসেছে। শনিবার (১০ এপ্রিল) ভোর ৬টায় সৈকতের বালিতে আটকে থাকতে দেখা যায় এই মৃত তিমিকে।

এর আগে গতকাল জোয়ারের সঙ্গে ভেসে আসে বিশাল আকৃতির একটি মৃত নীল তিমি। গতকাল রাতেই সেটিকে মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়। গবেষণার জন্য হাড় ও অন্য প্রত্যঙ্গ সংগ্রহের জন্য পুঁতে ফেলা স্থানটি সংরক্ষণ করছে সমুদ্র ও মৎস্য গবেষণা ইন্সটিটিউট।

শুক্রবারের মৃত তিমির পাওয়া যায় যে স্থান থেকে তা থেকে প্রায় ৫০০ মিটার দক্ষিণে ক্ষুদ্র তিমির মরদেহটি পাওয়া যায়। ২৫-৩০ ফুট লম্বা এ তিমিটিও অর্ধগলিত অবস্থায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের সদর রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা সমীর কুমার সাহা।

এসময় তিনি জানান, শুক্রবার ভেসে আসা মৃত তিমির দেহাবশেষ সৈকতের বালিয়াড়িতে পুঁতে ফেলা হয়েছে। জোয়ারের পানিতে আবার ভেসে যাওয়া থেকে দেহটি আটকাতে বন বিভাগের শতাধিক কর্মী চেষ্টা চালায়। এসময় প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের কর্মী এবং উৎসুক জনতাও এতে সামিল হয়। এরপর ভেটেনারি সার্জনগণ ময়নাতদন্তের পর এক্সকেভেটরের সাহায্যে মরদেহটি পুঁতে ফেলা হয়।

রেঞ্জ কর্মকর্তা আরো জানান, শনিবার ভোর ৬টায় একই সৈকতের ভিন্ন পয়েন্টে আরো একটি মৃত তিমির দেহাবশেষ বালিয়াড়িতে উঠে আসে। ধারণা করা হচ্ছে, এটিও আগের তিমিটির মতো মরে ভাসতে ভাসতে তীরে উঠে এসেছে। দুর্গন্ধ বেশি ছড়ানোর আগেই গতকালের মতো এটিও পুঁতে ফেলার উদ্যোগ চলছে।

তিমি সাধারণত দলবেধে চলে। কোনো কারণে দলছুট হলে অনেক সময় তিমি মারা যায়। শুক্রবার এবং শনিবারে তীরে আসা তিমি দুটির ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এসব তিমি অন্তত ১০-১২দিন আগে মারা গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কিন্তু তিমিগুলোর মৃত্যুর সঠিক কারণ এখনও অজানা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য