ঘরে স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ রেখে পালালেন স্বামী

  • অনলাইন
  • বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০২৩ ১১:১০:০০
  • কপি লিঙ্ক

ভোলার চরফ্যাশনে স্বামীর বসতঘরের নিজ শয়নকক্ষ থেকে সাথী বেগম নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। 

বুধবার বিকাল ৫টায় শশীভূষণ থানা পুলিশ হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গৃহবধূর স্বামীর বসতঘর থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে ঘটনার পর পরই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ ঘরে রেখে পালিয়ে যান স্বামী সোহেল ও শাশুড়ি।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, প্রায় ৭ মাস আগে শশীভূষণ থানার হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত একাব্বর কাজীর ছেলে সোহেলের সঙ্গে সাথীর বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যেই তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ শুরু হয়। দাম্পত্য কলহ নিয়েই কেটে গেছে ৭ মাস।

বিকালে স্বামী সোহেলের সঙ্গে দাম্পত্য কলহের জের ধরেই গৃহবধূ সাথী নিজ শয়নকক্ষে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেন। পরে গৃহবধূর শাশুড়ি ঘরের আড়ার সঙ্গে পুত্রবধূর নিথর দেহ ঝুলতে দেখে চিৎকার দেন। পরে প্রতিবেশীরা শশীভূষণ থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ শয়নকক্ষ থেকে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে। গৃহবধূর স্বামী ও পরিবারের সদস্যরা পলিয়ে যাওয়ায় তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।

শশীভূষণ থানার ওসি মো. এনামুল হক জানান, খবর পেয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য