সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪

  • অনলাইন
  • রবিবার, ০৫ জুন ২০২২ ০২:০৬:০০
  • কপি লিঙ্ক

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে একটি কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়েছে। শনিবার রাত ১১টার দিকে এই বিস্ফোরণে অন্তত চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অর্ধশতাধিক মানুষ। হতাহত ব্যক্তিদের মধ্যে ডিপোর শ্রমিকদের পাশাপাশি পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা রয়েছেন।

ঘটনার পরপরই হতাহত ব্যক্তিদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনায় দুজনের মৃত্যু কথা জানান হাসপাতালের সহকারী পরিচালক রাজীব পালিত। এর ঘণ্টাখানেক পরে আরও দুজনের মৃত্যুর খবর দেন মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) নুরুল আলম। তিনি বলেন, আহত ৬০ থেকে ৭০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে প্রায় ২০ জনের অবস্থা গুরুতর।

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গতকাল রাত নয়টার দিকে সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নে বিএম কনটেইনার ডিপোর লোডিং পয়েন্টের ভেতরে আগুন লাগে। কুমিরা ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। রাত পৌনে ১১টার দিকে এক কনটেইনার থেকে অন্য কনটেইনারে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। 

একটি কনটেইনারে রাসায়নিক থাকায় বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে ঘটনাস্থল থেকে অন্তত চার কিলোমিটার এলাকা কেঁপে ওঠে। আশপাশের বাড়িঘরের জানালার কাচ ভেঙে পড়ে।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক বলেন, বিস্ফোরণে তাঁদের থানার কনস্টেবল তুহিনের এক পা বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আরও অন্তত পাঁচ কনস্টেবল, ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মোতাহার হোসেন এবং শিল্প পুলিশের একাধিক সদস্য আহত হয়েছেন। এ ছাড়া ফায়ার সার্ভিসের এক সদস্য আহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহত সবার পরিচয় জানা যায়নি। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ফরহাদ হোসেন নামের একজন চট্টগ্রামের মেডিকেলের মর্গের সামনে কাঁদছিলেন। তিনি জানান, তাঁর চাচাতো ভাই মোবিন ওই ডিপোতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। বিস্ফোরণে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

মন্তব্য